বিক্রি হচ্ছে নারীর বুকের দুধ

0
113

শরীর ঘিন ঘিন করে উঠার মতো খবর হলো, শুধু পশুর নয় এবার চীনে বিক্রি হচ্ছে নারীর বুকের দুধ। বর্তমানে চীনাদের সম্পদশালী মানুষের কাছে বুকের দুধ নতুন এক বিলাসী পণ্য হিসেবে খুব জনপ্রিয় হয়ে উঠছে। এমনকি তাদের চাহিদা মেটাতে এ ধরনের সেবা দেয়ার লক্ষ্যে একটি মানবদেহে সুষম পুষ্টির ঘাটতি মেটাতে গৃহপালিত পশুর দুধের বিকল্প এমন কি থাকতে পারে ? কিন্তু সেখানে বেশ কিছু নারীর বুকের দুধ সংগ্রহকারী প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠেছে সেখানে।

হংকংয়ের সীমান্তবর্তী শেঝেন শহরে শিনশিনইউ লাঞ্চু নামের ২টি প্রতিষ্ঠান বুকের দুধদানে সক্ষম নারীদের  বুকের দুধ সংগ্রহের মাধ্যমে চীনের সম্পদশালী জনগণের চাহিদা পূরণ করছে। হাতিয়ে নিচ্ছে কয়েকগুন বেশী অর্থ। প্রতিষ্ঠান গুলো মূলত নবজাতক শিশুদের জন্য এ ধরনের নারীদের জোগাড় করলেও বেশি অর্থের বিনিময়ে পূর্ণবয়স্ক অধিক মূলে বিক্রি করে আসছেন। এর মধ্যে আবার অনেকেই অধিক পুষ্টিসমৃদ্ধ বুকের দুধ খেয়ে থাকেন সুস্থতার জন্য । এই ধরণের দুধ এখন একধরনের বিলাস বহুল অনুষ্ঠানে একটি পানিও হিসাবে স্থান পেয়েছে। ধীরে ধীরে বাড়ছে নারীর বুকের দুধের চাহিদা। বিস্তারিত ভিডিও তে দেখুন।

দুধ মানে হল এক প্রকার সাদা তরল পদার্থ যা স্তন থেকে নির্গত হয়। একজন নারীর দুধ পান করেই অাপনি অাজ বড় হয়েছেন এবং নারীদেহ নিয়ে ব্যাঙ্গ বিদ্রুপ করছেন। অার স্তন হল স্তন্যপায়ী প্রাণীদের শরীরে দুগ্ধ (স্তন্য) উৎপাদনকারী গ্রন্থি। স্ত্রী এবং পুরুষ উভয়লিঙ্গেই স্তন থাকলেও একমাত্র স্ত্রী প্রাণীই দুগ্ধ উৎপাদনে সক্ষম। বয়ঃসন্ধিকালে অর্থাৎ যৌবনা গমনে স্ত্রী শরীরে স্তন বিকশিত হতে আরম্ভ করে এবং আকারে বৃদ্ধি পায় ও স্থুলতা লাভ করে। সাধারণত ১৫ থেকে ১৮ বছর বয়সের মধ্যেই স্তনপরিণতি সম্পূর্ণ হয়। তাই দয়াকরে স্তন কে দুধ মনে করবেন না।

আপনার মতামত দিন

Please enter your comment!
Please enter your name here